ন্যায্য বেতনের দাবি সহ পাঁচ দফা জানিয়ে জেলা শাসককে ডেপুটেশন ভিআরপি কর্মিদের । - SAIKOTBHUMI

Breaking

Monday, August 19, 2019

ন্যায্য বেতনের দাবি সহ পাঁচ দফা জানিয়ে জেলা শাসককে ডেপুটেশন ভিআরপি কর্মিদের ।



সঞ্জীব মল্লিক , বাঁকুড়া : যখন রাজ্যের অন্যান কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি পাচ্ছে তখন রাজ্যের ভিআরপিদের কেন ন্যায্য বেতনের থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে । তাই ন্যায্য বেতনের দাবিতে বাঁকুড়া জেলা শাসকের কাছে ডেপুটেশন দিল ভিআরপি কর্মিরা । এদিন তারা বাঁকুড়া লালবাজার থেকে একটি মিছিল করে মাচানতলা হয়ে ডিএম অফিসের সামনে এসে পৌঁছান । এবং সেখানে তারা বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন । এরপর পাঁচ জনের একটি প্রতিনিধি দল জেলা শাসকের কাছে তাদের দাবি দাওয়া সংক্রান্ত একটি স্মারকলিপি তুলে দেন । এদিনের কর্মসূচীতে বাঁকুড়া জেলার ২২ টি ব্লকের ভিআরপি কর্মিরা অংশ নিয়েছিল ।

মাসিক বেতন চালু, ৬২ বছর এর কর্ম নিশ্চয়তা ও স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে বীমার আওতায় আনা সহ ৫ দফা দাবিতে আজ জেলাশাসকের দপ্তরে বিক্ষোভ এবং ডেপুটেশন কর্মসূচি পালন করল সারাবাংলা গ্রামীন সম্পদ কর্মী সংগঠন। আজ দুপুরে বাঁকুড়া হিন্দুহাই স্কুল থেকে জমায়েত করে বাঁকুড়া শহর ঘুরে জেলাশাসকের দপ্তরে সামনের বসে পড়ে বিক্ষোভ দেখায় গ্রামীন সম্পদ কর্মীরা। জেলায় মোট ১৭০০ গ্রামীন সম্পদ কর্মী রয়েছে। ডেঙ্গু প্রতিরোধ এন আর ই জি এস, পি এম জি এস ওয়াই এবং রেশন ব্যবস্থার  সার্ভের সহ বেশকিছু কাজে এদের ব্যবহার করে রাজ্যসরকার। কিন্তু তাদের বছরে  কাজ জুটতো ২৪০ দিন। বছরের বকি দিনগুলি তারা বেকারের জীবন যাপন করতে হয়। ১৫০ টাকা দৈনিক মজুরি হিসাবে মাসে তিন হাজার উপার্জন। এই বেতনে সংসার প্রতিপালন করা যায় না।এরই প্রতিবাদে আজ বিক্ষোভ শামিল হয় সারা বাংলা গ্রামীন সম্পদ কর্মী সংগঠনের সদস্যরা। রাজ্য সরকার প্রতিশ্রুতি মতো ব্যবস্থা না করলে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন এই সংগঠনের নেতৃত্ব।

বাইটঃ-অমিত সরকার (রাজ্য সম্পাদক, গ্রামিন সম্পদ কর্মী সংগঠন)

Pages