নন্দকুমারে ১০ চাকার লরি পিষে দিয়ে গেল এক ব্যবসায়ীকে, চাঞ্চল্য! - SAIKOTBHUMI

Breaking

Monday, June 24, 2019

নন্দকুমারে ১০ চাকার লরি পিষে দিয়ে গেল এক ব্যবসায়ীকে, চাঞ্চল্য!


প্রদীপ মাইতি,নন্দকুমার: রবিবার রাতে লরির তলায় চাপা পড়ে মৃত্যু হল এক ভুষিমাল দোকানদারের।পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম অলক পাল (২৬)।তাঁর বাড়ি নন্দকুমার থানার অন্তর্গত মান্দারগেছিয়া গ্রামে।
ঘটনাটি ঘটেছে হলদিয়া মেচেদা রাজ্য সড়কে দক্ষিণ শ্রীকৃষ্ণপুর বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায়। স্থানীয় সূত্রের খবর, তমলুক থেকে দ্রুত গতিতে মালবোঝাই একটি দশ চাকার লরি এক ব্যক্তিকে   চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয় দোকানদাররা বলেন, দোকান বন্ধ করে রাত দশটা নাগাদ বাড়ির উদ্দেশ্যে দোকানদার অলক পাল বেরিয়ে যায়। কিছুটা দূরেই রাস্তায় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে তাকে একেবারে পিষে দিয়ে পালিয়ে যায় । ঘাতক লরিটি কে ধরতে পারা যায় নি। পরে নন্দকুমার থানার পুলিশ এসে তার মৃতদেহটি নিয়ে যায়। তার কোমর থেকে মাথার দিকে কোন অংশই চেনা যায় না তার পোশাক দেখে স্থানীয় দোকানদার এবং লোকেরা তার পরিচয় জানায়। স্থানীয় বাসিন্দা কদম খানা গ্রাম নিবাসী নন্দ দুলাল সামন্ত ও পরমানন্দপুর গ্রামের মানিক লাল সাহু  বলেন,  সন্ধ্যা প্রতিদিন রাত ৮টা বাজলেই হলদিয়া মেচেদা এই রাজ্য সড়কের উপর অসংখ্য মালবোঝাই ১০চাকা, ১২চাকা  লরি ও ভেতর দিয়ে যাতায়াত করে। তাতে যেকোনো দিন আরো বড় কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।  ৪১নং  জাতীয় সড়কে এর উপর সোনাপাতা টোল ট্যাক্স বাঁচাতে অসংখ্য লরি  সন্ধ্যা ৮টা বাজলেই এই হলদিয়া মেচেদা রাজ্য সড়কে নন্দকুমার এর কাছ থেকে মেছদা বেরিয়ে যায়। আবার মেচেদা থেকে নন্দকুমার হাই ওয়েতে উঠে যায় তাতে টোল ট্যাক্স বেঁচে যায়।সেইসঙ্গে পুলিশও মোটা টাকা তোলা তোলা নেয়। কিন্তু ওই সময় পথচলতি মানুষের ভয়ে সময় গুনতে হয়। আরো বলেন শুধু সন্ধ্যা থেকে নয় সারা রাত ভোর পর্যন্ত লরি গুলি চলে দিনের আলো ফুটলে আবার বন্ধ হয়ে যায় । আমাদের সাইকেল নিয়ে যাতায়াত করতে ভীষণ ভয় পেতে হয়।  গাড়ির হেডলাইট গুলো এমনভাবে জ্বালিয়ে রাখে যাতে আমরা রাস্তার পাশে কিছুই দেখতে পাই না । লাইট গুলির কোন ডিপার পর্যন্ত করে না মদ্যপ অবস্থায় এভাবে দ্রুত গতিতে গাড়ি চালায়।ওই একই জায়গায় বছর দুয়েক আগে তার ঠিক উল্টো দিকে ভোর বেলায় প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে ছিলেন অমল মন্ডল পরমানন্দপুর ও তার পরিবার, পরিবারের সবাই বাঁচলেও অমল কে বাঁচানো যায়নি। আমরা প্রশাসনের উদ্দেশ্যে আবেদন করছি রাত ৮টা থেকে সকাল পর্যন্ত এই জাতীয় সড়কের উপরে যে অসংখ্য লরি যাতায়াত করে বিষয়টি দেখার জন্য।আর তা না হলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামব।

Pages