কথা রাখলেন শুভেন্দু অধিকারী : চারদিনের মাথায় ট্রাইসাকেল পেলেন খেঁজুরীর প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ - SAIKOTBHUMI

Breaking

Wednesday, November 28, 2018

কথা রাখলেন শুভেন্দু অধিকারী : চারদিনের মাথায় ট্রাইসাকেল পেলেন খেঁজুরীর প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ


সৈকতভূমি নিউজ ডেস্ক : একাধিকবার নিজের কনভয় থামিয়ে মানবিক মুখের পরিচয় রেখেছেন রাজ্যের পরিবহণ ও পরিবেশ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। এবার মানবদরদী শুভেন্দু অধিকারী কে প্রত্যক্ষ করল খেজুরি তথা পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মানুষ। তিনি কথা দিলে যে কথা রাখেন তা আবারও একবার প্রমাণ করলেন।
       গত ২৪ নভেম্বর শনিবার খেজুরীর কামারদায় হার্মাদ মুক্ত দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পরিবেশ ও পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। মঞ্চে বক্তব্য শেষ করে দলীয় কার্যালয় কিছু সময়ের জন্য নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করেন। দলীয় কার্যালয় থেকে বেরোনোর সময় হঠাৎই একটি ভাঙ্গা ট্রাইসাইকেল নিয়ে মন্ত্রীর সামনে হাজির হন খেজুরির জাহানাবাদ গ্রামের বাসিন্দা প্রতিবন্ধী নারায়ণ পন্ডা । আবেদন করেন একটি ট্রাইসাইকেল এবং একটি পাকার বাড়ি পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করার জন্যে।  মন্ত্রী প্রতিবন্ধীর আবেদন শুনে সঙ্গে সঙ্গেই আশ্বাস দিয়েছিলেন। আর চার দিনের মাথায় বুধবার নন্দীগ্রামের বিধায়ক কার্যালয় থেকে কর্মীরা এসে এলাকার উপপ্রধান বিশ্বনাথ মালিক এবং খেজুরি ১ পঞ্চায়েত সমিতির খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ জালা উদ্দিন খান নারায়ণ পন্ডার বাড়িতে হাজির হয়ে মন্ত্রীর পাঠানোর ট্রাই সাইকেল পৌঁছে দেন। সেইসঙ্গে মন্ত্রীর নির্দেশ মতো তার অনুগামীরা আবাস যোজনা বাড়ি পাইয়ে দিতে প্রয়োজনীয় নথি সংগ্রহ করেন। মন্ত্রীর পাঠানো ট্রাই সাইকেল এবং বাড়ি পাইয়ে দেওয়ার খবরে খুশি নারায়ণ পন্ডা ও তার স্ত্রী।
         প্রতিবন্ধী নারায়ণ পন্ডা রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠে অন্ন জোগাড়ের জন্য ভাঙ্গা ট্রাই সাইকেল নিয়ে দোকানে দোকানে  ভিক্ষা করে বেড়ান। তাতে যা রোজগার হয় তা নিয়েই স্বামী-স্ত্রীর  সংসার চলে। বহু কষ্টের মধ্যে তাদের সংসার চলে উপার্জনশীল বলতে প্রতিবন্ধী নারায়ন পন্ডা একাই। আর তাদের পরিবারে অর্থ উপার্জনেরমত আর কেউ নেই। মন্ত্রী সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় তারা খুশি। ট্রাইসাইকেল হাতে পেয়ে প্রতিবন্ধী নারায়ণ পন্ডা বলেন,মন্ত্রীকে আশীর্বাদ করি আগামী দিনে তার যা স্বপ্ন রয়েছে তা যেন ভগবান পূরণ করেন।

Pages